• সারাদেশ

    কউক চেয়ারম্যান এর সাথে কক্সবাজার চেম্বার /পরিচালকদের মতবিনিময়

      প্রতিনিধি ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ২:৪৭:৫৩ প্রিন্ট সংস্করণ

    আজিজ উদ্দিন।।

    কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নবাগত চেয়ারম্যান কমোডর মোহাম্মদ নুরুল আবছার, এনজিপি, এনডিসি, পিএসসি, বিএন (অব.) এর সাথে কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্সের পরিচালনা পরিষদের সদস্য সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎকার। এবং মতবিনিময় অনুষ্ঠান ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কনফারেন্স কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

    শুরুতে নবাগত চেয়ারম্যানকে চেম্বার এর পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। মতবিনিময় অনুষ্ঠানে কক্সবাজার উন্নয়ন কতৃপক্ষের চলমান কার্যক্রম, নীল অর্থনীতির সম্ভাবনা, জলবায়ু সহিষ্ণু উন্নয়ন এবং উন্নয়নের সাথে স্থানীয় অর্থনীতির যোগসূত্র স্থাপনের উপর বিশেষ আলোচনা করা হয়।

    চেম্বার এর পক্ষ থেকে নীল অর্থনীতির সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যে সকল ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা সংশ্লিষ্ট তাদেও নিয়ে একটি সেমিনারের আয়োজনের প্রস্তাব চেয়ারম্যান সাদরে গ্রহণ করেন এবং আগামী অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে একটি সময় নির্ধারণ করার জন্য অনুরোধ করেন। কউক চেয়ারম্যান বলেন উনি এই জনপদের সন্তান এ জেলার প্রতি উনার একটা সামাজিক এবং নৈতিক দায়বদ্ধতা আছে।

    উনি আরও বলেন, সকল অংশীজনদের নিয়ে একটি পর্যটন বান্ধব উন্নত কক্সবাজার বিনির্মানে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। বর্তমানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কোন কাজটি প্রযোজন তার উপর কর্ম পরিকল্পনা গ্রহন করছেন।

    মতবিনিময়ে অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব দেন চেম্বার সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী। এসময় উপস্থিত থেকে মূল্যবান পরামর্শ প্রদান করেন কক্সবাজার চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রী’র সহ-সভাপতি আবদুল খালেক, পরিচালনা পর্ষদ এর সদস্য উদয় শংকর পাল মিঠু, মেজবাহ উল্লাহ ভুট্টো, আবু হানিফ, এ আর এম শহিদুল ইসলাম রাসেল, রেজাউল করিম, আজমল হুদা, আবিদ আহসান সাগর ।

    চেম্বার সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী বলেন নীল অর্থনীতি বা ব্লু -ইকোনমি একটি উদীয়মান বাণিজ্যের ক্ষেত্র এবং টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এর ১৪ তম লক্ষমাত্রা। বঙ্গোপসাগরকে ঘিরে কক্সবাজার জাতীয় অর্থনীতিতে বিশাল একটা অবদান রাখতে পারে।

    প্রয়োজন সুষ্ঠু দিকনির্দেশনা আর সরকারের সহযোগিতা। বিশ্বে ৮০ শতাংশ বানিজ্য সমদ্র নির্ভর। তাছাড়া বাণিজ্য পরিধি বিবেচনায় সমুদ্রের মাধ্যমে প্রতি বছর ১.৮ ট্রিলিয়ন ডলার বাণিজ্য সংঘটিত হয়ে থাকে। সারা বিশ্বে ৩৫০ মিলিয়ন কর্ম সৃজন মৎস্য আহরণের সাথে সম্পৃক্ত। কক্সবাজার উপকূলীয় অঞ্চলে প্রায় দশ হাজার জেলে সমুদ্র নির্ভর।

    তাদের আহরণ এবং সংরক্ষণ প্রক্রিয়াকে আরও যোগ উপযোগী করা প্রযোজন। তাছাড়া ব্লু -ইকোনমিকে ঘিরে কোস্টাল-ট্যুরিজম বা উপকূলীয় পর্যটন এর এক অপার সম্ভাবনাও রয়েছে কক্সবাজারে।

    http://এইচ/কে

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ