ঢাকা ০২:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজ ::
বাইশরশি বিশ্ব জাকের মঞ্জিলে জাকের পার্টির ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে গাঁজা-ইয়াবা উদ্ধার, কথিত সাংবাদিকসহ আটক ১৩ স্বাধীনতার আগে মারা যাওয়া ব্যক্তিকে ২০১৫ সালে ঋণ দিয়েছে কৃষি ব্যাংক মানবপাচার মামলায় : নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩ জুলাই ধার্য করেছে আদালত  কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন মোদির মন্ত্রিসভায়? নীলফামারীর ডিমলায় ৭০০কৃষকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন কালীগঞ্জে গৃহহীন ও ভুমিহীনদের মাঝে জমিসহ ঘড় হস্তান্তর যে কারণে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের লেগ বিফোরে চার রান যোগ হয়নি মিয়ানমারের গুলি’তে খাদ্য সংকটে সেন্টমার্টিনবাসী,নৌ চলাচল বন্ধ  “দৌলতখানে আইস ফ্যাক্টরীর এ্যামোনিয়া গ্যাস বিস্ফোরণ”নিহত ২ আহত ১৮ জন

কক্সবাজারে স্বাস্থ্যসম্মত নগরীর কর্মপরিকল্পনার /লক্ষ্যে বাংলাদেশ মেয়র সম্মেলন

বাংলাদেশের বার্তা
  • আপডেট সময় : ০৪:০৯:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৯৬০২ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আজিজ উদ্দিন॥

বাংলাদেশের পৌর এলাকা গুলো স্বাস্থ্যসম্মত নগরী গড়তে কর্মপরিকল্পনা তৈরির লক্ষ্যে কক্সবাজারে আজ সন্ধ্যায় পাঁচ তারকা মানের হোটেলে দুইদিন ব্যাপী মেয়র সম্মেলন।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে শুরু হয়েছে।
তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা দিয়েছেন। আমরা সেটা বাস্তবায়নে করতে কক্সবাজারকে মাদক ও ইয়াবা মুক্ত চাই।

আগামীর কক্সবাজার হবে ইয়াবা ও মাদক মুক্ত। তামাক মুক্ত বাংলাদেশ চাই, তামাক মুক্ত কক্সবাজার চাই। আমরা পৌরসভার মেয়রগণ স্ব স্ব পৌর এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করলে তামাক মুক্ত হবে বাংলাদেশ।

আর কোন পিতা মাদকের কারণে হাসপাতালে ভর্তি হতে যেন না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রেখে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশ মেয়র সম্মেলন-২০২২ এর তামাক নিয়ন্ত্রণ এবং রোগ প্রতিহতকরণে যোগ দিতে এসেছেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন সচিবসহ সারাদেশের ১৯ জন মেয়র।

পাশাপাশি স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সম্মেলনে বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে। এছাড়া সরকারের তিনজন উর্দ্বোতন কর্মকর্তা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি এবং সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধিগণ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি তারকামানের হোটেলে সম্মেলন কক্ষে এ সম্মেলনের উদ্বোধন হয়।
বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এই সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যেটি আন্তর্জাতিক সংস্থা দি ইউনিয়নের কারিগরি সহযোগিতা, কক্সবাজার পৌরসভা, ধামরাই পৌরসভা ও এইড ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের সার্বিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান।

এর আগে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক “স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন নির্দেশিকা” নামে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়।

তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার মেয়ররা অসংক্রামক রোগ ও তামাক নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন সময়ে কর্মসূচি পালন ও যথাযথ ভূমিকা পালন করছেন।

তামাক নিয়ন্ত্রণ ও অসংক্রামক রোগ নিরাময়ের লক্ষ্যে কক্সবাজারে এই সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভা নগরকেন্দ্রিক সভ্যতার অন্যতম চালিকা শক্তি সেক্ষেত্রে একটি নগরের সার্বিক উন্নয়নে মেয়রদের ভূমিকায় অগ্রগণ্য।

জনস্বাস্থ্য রক্ষায় অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্দেশিকাটি এবং তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন যেটি ২০০৫ সালে প্রণীত হয়েছে এবং পরবর্তিতে ২০১৩ সালে সংশোধিত হয়েছে এবং যেটি আবারো সংশোধনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

সেটির কার্যকর প্রয়োগের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী “আগামী ২০৪০ সাল নাগাদ বাংলাদেশ থেকে তামাকের ব্যবহার সম্পূর্ণ নির্মূল করা হবে” সেই প্রতিপাদ্য বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করার লক্ষ্যেই এই সামিটের আয়োজন।
প্রসঙ্গত: “এশিয়ান প্যাসিফিক সিটিজ এলায়েন্স ফর হেলথ্ এন্ড ডেভেলপমেন্ট-এপিকেট” দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন শহরে মেয়রদের নিয়ে এ ধরনের সম্মেলনের আয়োজন করে থাকে।

এরকম একটি সম্মেলন ২০১৮ সালে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বাংলাদেশের কিছু মেয়র এবং সংসদ সদস্যের সমন্বয়ে “মেয়র এলায়েন্স ফর হেলদী সিটি” গঠিত হয়।

যার মাধ্যমে বাংলাদেশের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে মেয়ররা তাদের স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠান ও সম্মিলিতভাবে কাজ করবার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। সেই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজারে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত,মেয়র সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদ।

http://এইচ/কে

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

কক্সবাজারে স্বাস্থ্যসম্মত নগরীর কর্মপরিকল্পনার /লক্ষ্যে বাংলাদেশ মেয়র সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৪:০৯:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

আজিজ উদ্দিন॥

বাংলাদেশের পৌর এলাকা গুলো স্বাস্থ্যসম্মত নগরী গড়তে কর্মপরিকল্পনা তৈরির লক্ষ্যে কক্সবাজারে আজ সন্ধ্যায় পাঁচ তারকা মানের হোটেলে দুইদিন ব্যাপী মেয়র সম্মেলন।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে শুরু হয়েছে।
তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা দিয়েছেন। আমরা সেটা বাস্তবায়নে করতে কক্সবাজারকে মাদক ও ইয়াবা মুক্ত চাই।

আগামীর কক্সবাজার হবে ইয়াবা ও মাদক মুক্ত। তামাক মুক্ত বাংলাদেশ চাই, তামাক মুক্ত কক্সবাজার চাই। আমরা পৌরসভার মেয়রগণ স্ব স্ব পৌর এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করলে তামাক মুক্ত হবে বাংলাদেশ।

আর কোন পিতা মাদকের কারণে হাসপাতালে ভর্তি হতে যেন না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রেখে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশ মেয়র সম্মেলন-২০২২ এর তামাক নিয়ন্ত্রণ এবং রোগ প্রতিহতকরণে যোগ দিতে এসেছেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন সচিবসহ সারাদেশের ১৯ জন মেয়র।

পাশাপাশি স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সম্মেলনে বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে। এছাড়া সরকারের তিনজন উর্দ্বোতন কর্মকর্তা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি এবং সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধিগণ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি তারকামানের হোটেলে সম্মেলন কক্ষে এ সম্মেলনের উদ্বোধন হয়।
বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এই সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যেটি আন্তর্জাতিক সংস্থা দি ইউনিয়নের কারিগরি সহযোগিতা, কক্সবাজার পৌরসভা, ধামরাই পৌরসভা ও এইড ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের সার্বিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান।

এর আগে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক “স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন নির্দেশিকা” নামে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়।

তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বিভিন্ন সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার মেয়ররা অসংক্রামক রোগ ও তামাক নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন সময়ে কর্মসূচি পালন ও যথাযথ ভূমিকা পালন করছেন।

তামাক নিয়ন্ত্রণ ও অসংক্রামক রোগ নিরাময়ের লক্ষ্যে কক্সবাজারে এই সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভা নগরকেন্দ্রিক সভ্যতার অন্যতম চালিকা শক্তি সেক্ষেত্রে একটি নগরের সার্বিক উন্নয়নে মেয়রদের ভূমিকায় অগ্রগণ্য।

জনস্বাস্থ্য রক্ষায় অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্দেশিকাটি এবং তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন যেটি ২০০৫ সালে প্রণীত হয়েছে এবং পরবর্তিতে ২০১৩ সালে সংশোধিত হয়েছে এবং যেটি আবারো সংশোধনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

সেটির কার্যকর প্রয়োগের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী “আগামী ২০৪০ সাল নাগাদ বাংলাদেশ থেকে তামাকের ব্যবহার সম্পূর্ণ নির্মূল করা হবে” সেই প্রতিপাদ্য বাস্তবায়নে একযোগে কাজ করার লক্ষ্যেই এই সামিটের আয়োজন।
প্রসঙ্গত: “এশিয়ান প্যাসিফিক সিটিজ এলায়েন্স ফর হেলথ্ এন্ড ডেভেলপমেন্ট-এপিকেট” দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন শহরে মেয়রদের নিয়ে এ ধরনের সম্মেলনের আয়োজন করে থাকে।

এরকম একটি সম্মেলন ২০১৮ সালে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বাংলাদেশের কিছু মেয়র এবং সংসদ সদস্যের সমন্বয়ে “মেয়র এলায়েন্স ফর হেলদী সিটি” গঠিত হয়।

যার মাধ্যমে বাংলাদেশের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে মেয়ররা তাদের স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠান ও সম্মিলিতভাবে কাজ করবার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। সেই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজারে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত,মেয়র সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদ।

http://এইচ/কে