ঢাকা ০২:৩৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করেছে ইসি চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৯ নম্বর ও মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে যেসব জেলায় শাহজালাল বিমানবন্দরে ৫ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পর্যায় শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক সামছুদ্দিন আহমেদ ইরান রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে শোক বই “জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের” পক্ষে শোক প্রকাশ শ্রীপুরে ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে শিক্ষকের চিঠি প্রতিবাদ করায় পিতাকে কুপিয়ে জখম হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট নিহত ‘জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের”শোক কীভাবে বিধ্বস্ত হলো ইরানি প্রেসিডেন্ট রাইসির হেলিকপ্টার? হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত ইরানের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‌’মারা গেছেন’
সংবাদ শিরোনাম ::
১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করেছে ইসি চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৯ নম্বর ও মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে যেসব জেলায় শাহজালাল বিমানবন্দরে ৫ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পর্যায় শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক সামছুদ্দিন আহমেদ ইরান রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে শোক বই “জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের” পক্ষে শোক প্রকাশ শ্রীপুরে ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে শিক্ষকের চিঠি প্রতিবাদ করায় পিতাকে কুপিয়ে জখম হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট নিহত ‘জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের”শোক কীভাবে বিধ্বস্ত হলো ইরানি প্রেসিডেন্ট রাইসির হেলিকপ্টার? হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত ইরানের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‌’মারা গেছেন’

কক্সবাজারে খাবারের সন্ধানে বানর আসা শুরু করেছে/ লোকালয়ে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:২৪:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২
  • / ৩৬০০ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আজিজ উদ্দিন।।

কক্সবাজার মহেশখালী উপজেলায় খাবারের সন্ধানে বনের বানর আসা শুরু করেছে লোকালয়ে।
মহেশখালী ঘোরকঘাটা পাহাড়ি এলাকায় তীব্র খাদ্য সংকটে রয়েছে বন্যপ্রাণীরা।

এজন্য বন্যপ্রাণী গুলো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লোকালয়ে এসে পেটের ক্ষুধা মিটাতে খাদ্য সংগ্রহ করতে দেখা গেছে একঝাঁক বানর। আজ (৩অক্টোবর) সোমবার সকাল ১০ টায় আবু বক্কর ছিদ্দিক নামের একজনের বাড়ীর একটি আম গাছে ৭টি বানর খাবারের সন্ধানে অবস্থান করছে ।

আবু বক্কর ছিদ্দিক মুঠোফোনে বাংলাদেশের বার্তার কক্সবাজার প্রতিনিধিকে জানান, এই বানর গুলো দেখে মনে হচ্ছে নিশ্চয় খাবারের সন্ধানে এসেছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে, একমাত্র পেটের দায়ে ক্ষুধা নিবারণ করতে খাদ্য সংগ্রহ করতে বাড়ির গাছে এসেছে।

সম্প্রতি মহেশখালীতে কিছু পাহাড় খেকো তারা প্রতিনিয়ত পাহাড়ের মাটি ও গাছ কেটে বিক্রি করছে। একই সাথে নিধন করা হচ্ছে পাহাড়ের বন জঙ্গল , ধ্বংস হচ্ছে বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল । মানবজাতির নৃশংসতা আর অত্যাচারে বনেও থাকতে পারছে না বন্যপ্রাণী গুলো। মহেশখালীর পাহাড়ে দেখা দিয়েছে বন্যপ্রাণীদের চরম খাদ্য সংকট । একারনে ঝাঁকে ঝাঁকে বনের বানর গুলো এখন অতি লোকালয়ে এসে খাদ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছেন।
বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল রক্ষা করা সকল মানবের দায়িত্ব, বন্যপ্রাণীদের বাঁচিয়ে রাখা সচেতন মহলের কাজ বলে মনে করছেন বিশেজ্ঞরা।

একসময় মহেশখালীর পাহাড় গুলোতে দেখা মিলতো, হরেক রকম বন্যপ্রাণী। পাহাড়কাটা ও গাছ নিধনের কারণে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে বন্যপ্রাণী। (বাপা) মহেশখালী উপজেলার দায়িত্বরত একজন ব্যক্তি(নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) বলেন আমরা প্রতিনিয়ত চেষ্টা করছি পাহাড় কাটা ও গাছ নিধনের বিরুদ্ধে কাজ করতে। পাহাড় কেকোরা এত বেশি শক্তিশালী, তাই তাদের বিরুদ্ধে পেরে উঠতে আমাদের(বাপা) হিমশিম খেতে হচ্ছে। তারপরও আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়ে যাব।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

কক্সবাজারে খাবারের সন্ধানে বানর আসা শুরু করেছে/ লোকালয়ে

আপডেট সময় : ০৬:২৪:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২

আজিজ উদ্দিন।।

কক্সবাজার মহেশখালী উপজেলায় খাবারের সন্ধানে বনের বানর আসা শুরু করেছে লোকালয়ে।
মহেশখালী ঘোরকঘাটা পাহাড়ি এলাকায় তীব্র খাদ্য সংকটে রয়েছে বন্যপ্রাণীরা।

এজন্য বন্যপ্রাণী গুলো জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লোকালয়ে এসে পেটের ক্ষুধা মিটাতে খাদ্য সংগ্রহ করতে দেখা গেছে একঝাঁক বানর। আজ (৩অক্টোবর) সোমবার সকাল ১০ টায় আবু বক্কর ছিদ্দিক নামের একজনের বাড়ীর একটি আম গাছে ৭টি বানর খাবারের সন্ধানে অবস্থান করছে ।

আবু বক্কর ছিদ্দিক মুঠোফোনে বাংলাদেশের বার্তার কক্সবাজার প্রতিনিধিকে জানান, এই বানর গুলো দেখে মনে হচ্ছে নিশ্চয় খাবারের সন্ধানে এসেছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে, একমাত্র পেটের দায়ে ক্ষুধা নিবারণ করতে খাদ্য সংগ্রহ করতে বাড়ির গাছে এসেছে।

সম্প্রতি মহেশখালীতে কিছু পাহাড় খেকো তারা প্রতিনিয়ত পাহাড়ের মাটি ও গাছ কেটে বিক্রি করছে। একই সাথে নিধন করা হচ্ছে পাহাড়ের বন জঙ্গল , ধ্বংস হচ্ছে বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল । মানবজাতির নৃশংসতা আর অত্যাচারে বনেও থাকতে পারছে না বন্যপ্রাণী গুলো। মহেশখালীর পাহাড়ে দেখা দিয়েছে বন্যপ্রাণীদের চরম খাদ্য সংকট । একারনে ঝাঁকে ঝাঁকে বনের বানর গুলো এখন অতি লোকালয়ে এসে খাদ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছেন।
বন্যপ্রাণীর আবাসস্থল রক্ষা করা সকল মানবের দায়িত্ব, বন্যপ্রাণীদের বাঁচিয়ে রাখা সচেতন মহলের কাজ বলে মনে করছেন বিশেজ্ঞরা।

একসময় মহেশখালীর পাহাড় গুলোতে দেখা মিলতো, হরেক রকম বন্যপ্রাণী। পাহাড়কাটা ও গাছ নিধনের কারণে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে বন্যপ্রাণী। (বাপা) মহেশখালী উপজেলার দায়িত্বরত একজন ব্যক্তি(নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) বলেন আমরা প্রতিনিয়ত চেষ্টা করছি পাহাড় কাটা ও গাছ নিধনের বিরুদ্ধে কাজ করতে। পাহাড় কেকোরা এত বেশি শক্তিশালী, তাই তাদের বিরুদ্ধে পেরে উঠতে আমাদের(বাপা) হিমশিম খেতে হচ্ছে। তারপরও আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়ে যাব।