ঢাকা ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অবিবাহিত তরুণীর নামে মাতৃত্বকালীন ভাতা নেন চেয়ারম্যান  শ্রীপুরে পীর-আওলিয়ার মাজার জিয়ারতের মধ্যদিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাজন যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের পুরস্কার পেলেন কুবির চার শিক্ষার্থী জাতীয় পদক প্রাপ্ত সাবেক প্রধান শিক্ষক কাজী ফয়জুর রহমানের দাফন সম্পন্ন শ্রীপুরে ঈদ পুনর্মিলনী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ঢাকার বুকে মাগুরা জেলার প্রতিনিধিত্বকারী এক গর্ব ও অহংকারের নাম মাগুরা লায়ন্স ক্রিকেট ক্লাব শ্রীপুরে সবুজ আন্দোলনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বিআরটিসির বাসেও চলছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সৌদির সঙ্গে কাল বাংলাদেশেও হতে পারে ঈদ শ্রীপুরে দেশ ও প্রবাসী সমন্বয় কল্যাণ তহবিলের ঈদ সামগ্রী বিতরণ
ব্রেকিং নিউজ ::

 ৭কলেজের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু: ২১ মার্চ ২০২৪,আবেদন শেষ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪ * এ বছর জনপ্রতি ফিতরার হার সর্বনিন্ম ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৯৭০ টাকা *

গোপনে ফোনের কল রেকর্ড করে এই ‘স্পাই’ অ্যাপ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৩৬০৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক। 

আপনার অজান্তেই আপনার ফোনের সব কল রেকর্ড করে চলছে একটি অ্যাপ। এমনকি ফোনে আদান-প্রদান করা এসএমএসও অ্যাপটি পড়ে নেয়। অ্যাপটির নাম স্পাই নোট।

সম্প্রতি এই অ্যাপের গুপ্তচরবৃত্তির খবর জেনেছে এফ-সিকিউর নামের একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান।

স্পা নোট অ্যাপর ভয়ংকর দিক হল, এটি সাউন্ড রেকর্ড করে। আপনার ফোনের সমস্ত কল রেকর্ডও করতে পারে। ফলে, সেখান থেকে একাধিক জরুরি তথ্য চুরি হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়ে যায়। আপনার গোপন কথোপকথনও লিক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও তৈরি হয়।এফ-সিকিউরের গবেষক অমিত তাম্বে জানিয়েছেন, এই ট্রোজান সবসময় ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার সুযোগ খোঁজে।আসলে এটি একটি ভেকধারী অ্যাপ, যা আপনার ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের রেগুলার আপডেট দেওয়ার ভান করে। আর এই সবকিছুই হল ব্যবহারকারীর ফোনের অ্যাক্সেস নেওয়ার কৌশল। এখন সেই ফাঁদে আপনি পা দিলেই অ্যাপটি আপনার ফোনের অ্যাক্সেস পেয়ে যায়। আর একবার অ্যাক্সেস পেয়ে গেলে আপনার টেক্সট মেসেজ চুরি করে, হাতিয়ে নেয় ব্যাংকিং তথ্যও।

সাইবার সিকিওরিটি কোম্পানি এফ-সিকিউর এই ভুয়া ম্যালওয়্যার অ্যাপ সম্পর্কে একাধিক তথ্য জানিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির সিকিওরিটি রিসার্চাররা বুঝতে পেরেছেন, ভুয়া টেক্সট মেসেজের মাধ্যমেই ম্যালওয়্যারটি ছড়িয়ে পড়ে। সেই মেসেজের মাধ্যমেই বিশেষ লিংক পাঠিয়ে অ্যাপটি ডাউনলোড করার প্ররোচনা দেয়। লিঙ্কে ক্লিক করলে কী হতে পারে, তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন!

স্পা নোট অন্যান্য সাইবার ঝুঁকির থেকে অনেকটাই আলাদা। এটি কেবল কল লগ, ক্যামেরা অ্যাক্সেস, টেক্সট মেসেজ এবং আপনার ফোনের স্টোরেজের মতো তথ্যই যে নেয়, তা নয়। আপনার ফোনে খুব ভাল ভাবেই অ্যাপের ভেক ধরে নিজেকে লুকিয়ে রাখতে পারে। অ্যাপটি আপনার হোম স্ক্রিনে, এমনকি আপনার দ্বারা ব্যবহৃত লেটেস্ট অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে লুকিয়ে থাকে। আপনার ফোনের সিকিওরিটি সিস্টেমের জন্য এটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ এবং এই ট্রোজ়ান একবার ফোনে ঢুকে পড়লে তার ক্ষতিকারক কাজগুলি বন্ধ করা খুবই কঠিন হয়ে যায়।গবেষকরা কী বলছেন?

এফ সিকিউর এর একজন গবেষক অমিত তাম্বে জানিয়েছেন, এই ট্রোজান সবসময় ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার সুযোগ খোঁজে। তার কথায়, সাধারণত বাইরে থেকে ট্রিগার করেই স্পাই নোট অ্যাপটি চালু করা যেতে পারে। কোনোভাবে একবার ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার পরেই অ্যাপটি তার মূল কার্যকলাপ শুরু করে।

স্পাই নোট অত্যন্ত জটিল উপায়ে বিশেষ অনুমতি ব্যবহার করে। আপনার ফোনের উপরে আপনাকেই অতিরিক্ত ক্ষমতা দিতে অ্যাপটি এমনই কৌশল অবলম্বন করে, যা আখেরে আপনারই বিপদ ডেকে আনে। সাউন্ড রেকর্ড করা, ফোন কল করা, এমনকি আপনার স্ক্রিনের ছবি পর্যন্ত তুলতে পারে অ্যাপটি।

আপনার ফোনের সেটিংস থেকে অ্যাপটিকে যদি উড়িয়ে দিতে চান, তাহলে সে কাজও বড়ই কঠিন। স্পাই নোট তার প্রকৃতিতে খুবই চতুর। সেটিংস থেকে আপনি অ্যাপটিকে উড়িয়ে দেওয়ার পরে দেখলেন, তা হয়তো আর নেই। আদতে কিন্তু তা নয়। ক্ষতিকারক অ্যাপটি আপনার ফোনে তখনও থেকে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

গোপনে ফোনের কল রেকর্ড করে এই ‘স্পাই’ অ্যাপ

আপডেট সময় : ০৭:২৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০২৩

তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক। 

আপনার অজান্তেই আপনার ফোনের সব কল রেকর্ড করে চলছে একটি অ্যাপ। এমনকি ফোনে আদান-প্রদান করা এসএমএসও অ্যাপটি পড়ে নেয়। অ্যাপটির নাম স্পাই নোট।

সম্প্রতি এই অ্যাপের গুপ্তচরবৃত্তির খবর জেনেছে এফ-সিকিউর নামের একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান।

স্পা নোট অ্যাপর ভয়ংকর দিক হল, এটি সাউন্ড রেকর্ড করে। আপনার ফোনের সমস্ত কল রেকর্ডও করতে পারে। ফলে, সেখান থেকে একাধিক জরুরি তথ্য চুরি হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়ে যায়। আপনার গোপন কথোপকথনও লিক হয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও তৈরি হয়।এফ-সিকিউরের গবেষক অমিত তাম্বে জানিয়েছেন, এই ট্রোজান সবসময় ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার সুযোগ খোঁজে।আসলে এটি একটি ভেকধারী অ্যাপ, যা আপনার ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের রেগুলার আপডেট দেওয়ার ভান করে। আর এই সবকিছুই হল ব্যবহারকারীর ফোনের অ্যাক্সেস নেওয়ার কৌশল। এখন সেই ফাঁদে আপনি পা দিলেই অ্যাপটি আপনার ফোনের অ্যাক্সেস পেয়ে যায়। আর একবার অ্যাক্সেস পেয়ে গেলে আপনার টেক্সট মেসেজ চুরি করে, হাতিয়ে নেয় ব্যাংকিং তথ্যও।

সাইবার সিকিওরিটি কোম্পানি এফ-সিকিউর এই ভুয়া ম্যালওয়্যার অ্যাপ সম্পর্কে একাধিক তথ্য জানিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির সিকিওরিটি রিসার্চাররা বুঝতে পেরেছেন, ভুয়া টেক্সট মেসেজের মাধ্যমেই ম্যালওয়্যারটি ছড়িয়ে পড়ে। সেই মেসেজের মাধ্যমেই বিশেষ লিংক পাঠিয়ে অ্যাপটি ডাউনলোড করার প্ররোচনা দেয়। লিঙ্কে ক্লিক করলে কী হতে পারে, তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন!

স্পা নোট অন্যান্য সাইবার ঝুঁকির থেকে অনেকটাই আলাদা। এটি কেবল কল লগ, ক্যামেরা অ্যাক্সেস, টেক্সট মেসেজ এবং আপনার ফোনের স্টোরেজের মতো তথ্যই যে নেয়, তা নয়। আপনার ফোনে খুব ভাল ভাবেই অ্যাপের ভেক ধরে নিজেকে লুকিয়ে রাখতে পারে। অ্যাপটি আপনার হোম স্ক্রিনে, এমনকি আপনার দ্বারা ব্যবহৃত লেটেস্ট অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে লুকিয়ে থাকে। আপনার ফোনের সিকিওরিটি সিস্টেমের জন্য এটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ এবং এই ট্রোজ়ান একবার ফোনে ঢুকে পড়লে তার ক্ষতিকারক কাজগুলি বন্ধ করা খুবই কঠিন হয়ে যায়।গবেষকরা কী বলছেন?

এফ সিকিউর এর একজন গবেষক অমিত তাম্বে জানিয়েছেন, এই ট্রোজান সবসময় ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার সুযোগ খোঁজে। তার কথায়, সাধারণত বাইরে থেকে ট্রিগার করেই স্পাই নোট অ্যাপটি চালু করা যেতে পারে। কোনোভাবে একবার ব্যবহারকারীর ফোনে ঢুকে পড়ার পরেই অ্যাপটি তার মূল কার্যকলাপ শুরু করে।

স্পাই নোট অত্যন্ত জটিল উপায়ে বিশেষ অনুমতি ব্যবহার করে। আপনার ফোনের উপরে আপনাকেই অতিরিক্ত ক্ষমতা দিতে অ্যাপটি এমনই কৌশল অবলম্বন করে, যা আখেরে আপনারই বিপদ ডেকে আনে। সাউন্ড রেকর্ড করা, ফোন কল করা, এমনকি আপনার স্ক্রিনের ছবি পর্যন্ত তুলতে পারে অ্যাপটি।

আপনার ফোনের সেটিংস থেকে অ্যাপটিকে যদি উড়িয়ে দিতে চান, তাহলে সে কাজও বড়ই কঠিন। স্পাই নোট তার প্রকৃতিতে খুবই চতুর। সেটিংস থেকে আপনি অ্যাপটিকে উড়িয়ে দেওয়ার পরে দেখলেন, তা হয়তো আর নেই। আদতে কিন্তু তা নয়। ক্ষতিকারক অ্যাপটি আপনার ফোনে তখনও থেকে যায়।