ঢাকা ০৭:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
দুর্গাপুরে আওয়ামী লীগের কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত অবিবাহিত তরুণীর নামে মাতৃত্বকালীন ভাতা নেন চেয়ারম্যান  শ্রীপুরে পীর-আওলিয়ার মাজার জিয়ারতের মধ্যদিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাজন যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের পুরস্কার পেলেন কুবির চার শিক্ষার্থী জাতীয় পদক প্রাপ্ত সাবেক প্রধান শিক্ষক কাজী ফয়জুর রহমানের দাফন সম্পন্ন শ্রীপুরে ঈদ পুনর্মিলনী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ঢাকার বুকে মাগুরা জেলার প্রতিনিধিত্বকারী এক গর্ব ও অহংকারের নাম মাগুরা লায়ন্স ক্রিকেট ক্লাব শ্রীপুরে সবুজ আন্দোলনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বিআরটিসির বাসেও চলছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সৌদির সঙ্গে কাল বাংলাদেশেও হতে পারে ঈদ
ব্রেকিং নিউজ ::

 ৭কলেজের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু: ২১ মার্চ ২০২৪,আবেদন শেষ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪ * এ বছর জনপ্রতি ফিতরার হার সর্বনিন্ম ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৯৭০ টাকা *

জাল সনদের শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বন্ধ_টাকা ফেরত না দিলে হবে মামলা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৩৬০০ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বেসরকারি স্কুল-কলেজে সদন জাল করে চাকরি নেওয়া শিক্ষকের বেতন-ভাতা বন্ধ করে দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

এমপিও শিক্ষকদের বুধবার (২ আগস্ট) পরিশোধ করা জুলাই মাসের বেতন-ভাতার তালিকায় তাদের নাম নেই। তবে এখনো বেশকিছু জাল সনদে চাকরি নেওয়া শিক্ষক নিয়মিত বেতন-ভাতা পাচ্ছেন। বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে তাদের আর্থিক সুবিধা তথা বেতন-ভাতা বন্ধ করা হবে বলে জানিয়েছেন মাউশি কর্মকর্তা।

জানা গেছে, পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর (ডিআইএ) থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে ৬৭৮ জন এমপিওভুক্ত জাল শিক্ষক শনাক্ত করে চিঠি পাঠানো হয়। পরে ওই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে এমপিও বন্ধ ও ফৌজদারি মামলার সুপারিশ করা হয়।

একই সঙ্গে তাদের অবসরকালীন সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা আটকে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলা হয়।মাউশি মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, শনাক্ত জাল শিক্ষকদের মধ্যে প্রায় সবার বেতন-ভাতা বন্ধ করা হয়েছে। কিছু বাকি থাকলেও থাকতে পারে। সেগুলো একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে।

হয়তো কাউকে শোকজ করে রাখা হয়েছে। শোকজের প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত তো বেতন-ভাতাটা আমরা বন্ধ করতে পারি না।যাদের বেতন-ভাতা বন্ধ হয়েছে, তাদের কাছে এ পর্যন্ত সরকারের দেওয়া বেতন-ভাতা ফেরত চাওয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, এবার এমপিও বাবদ যে টাকা তারা নিয়েছেন, তা ফেরত নেওয়া হবে। ফেরতের নির্দেশ দিয়ে চিঠি পাঠানো হবে। যদি কেউ টাকা ফেরত না দেন, তাহলে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

জানা গেছে, জাল শিক্ষকের তালিকায় উঠে আসা ৬৭৮ জনের মধ্যে ৪৭৯ জন এমপিওভুক্ত। বাকি ১৯৯ জন নন-এমপিও। জাল সনদধারীদের মধ্যে ৩২৩ জন শিক্ষক নিবন্ধন সনদ জাল করে চাকরি নেন। বাকিদের মধ্যে ১২৫ জন জাল কম্পিউটার সনদ এবং ৩১ জন বিএড-বিপিএডসহ বিভিন্ন সনদ জাল করে এমপিও সুবিধা নিচ্ছিলেন।এদিকে, বুধবার (২ আগস্ট) থেকে আগামী ৮ আগস্ট পর্যন্ত বেতন-ভাতা তুলতে পারবেন এমপিও শিক্ষকরা। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মতোই বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরাও (এমপিও) ৫ শতাংশ বিশেষ প্রণোদনাসহ জুলাই মাসের বেতন-ভাতা পাচ্ছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

জাল সনদের শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বন্ধ_টাকা ফেরত না দিলে হবে মামলা

আপডেট সময় : ১২:৩৩:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩

বেসরকারি স্কুল-কলেজে সদন জাল করে চাকরি নেওয়া শিক্ষকের বেতন-ভাতা বন্ধ করে দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

এমপিও শিক্ষকদের বুধবার (২ আগস্ট) পরিশোধ করা জুলাই মাসের বেতন-ভাতার তালিকায় তাদের নাম নেই। তবে এখনো বেশকিছু জাল সনদে চাকরি নেওয়া শিক্ষক নিয়মিত বেতন-ভাতা পাচ্ছেন। বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে তাদের আর্থিক সুবিধা তথা বেতন-ভাতা বন্ধ করা হবে বলে জানিয়েছেন মাউশি কর্মকর্তা।

জানা গেছে, পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর (ডিআইএ) থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে ৬৭৮ জন এমপিওভুক্ত জাল শিক্ষক শনাক্ত করে চিঠি পাঠানো হয়। পরে ওই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে এমপিও বন্ধ ও ফৌজদারি মামলার সুপারিশ করা হয়।

একই সঙ্গে তাদের অবসরকালীন সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা আটকে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলা হয়।মাউশি মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, শনাক্ত জাল শিক্ষকদের মধ্যে প্রায় সবার বেতন-ভাতা বন্ধ করা হয়েছে। কিছু বাকি থাকলেও থাকতে পারে। সেগুলো একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে।

হয়তো কাউকে শোকজ করে রাখা হয়েছে। শোকজের প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত তো বেতন-ভাতাটা আমরা বন্ধ করতে পারি না।যাদের বেতন-ভাতা বন্ধ হয়েছে, তাদের কাছে এ পর্যন্ত সরকারের দেওয়া বেতন-ভাতা ফেরত চাওয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, এবার এমপিও বাবদ যে টাকা তারা নিয়েছেন, তা ফেরত নেওয়া হবে। ফেরতের নির্দেশ দিয়ে চিঠি পাঠানো হবে। যদি কেউ টাকা ফেরত না দেন, তাহলে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

জানা গেছে, জাল শিক্ষকের তালিকায় উঠে আসা ৬৭৮ জনের মধ্যে ৪৭৯ জন এমপিওভুক্ত। বাকি ১৯৯ জন নন-এমপিও। জাল সনদধারীদের মধ্যে ৩২৩ জন শিক্ষক নিবন্ধন সনদ জাল করে চাকরি নেন। বাকিদের মধ্যে ১২৫ জন জাল কম্পিউটার সনদ এবং ৩১ জন বিএড-বিপিএডসহ বিভিন্ন সনদ জাল করে এমপিও সুবিধা নিচ্ছিলেন।এদিকে, বুধবার (২ আগস্ট) থেকে আগামী ৮ আগস্ট পর্যন্ত বেতন-ভাতা তুলতে পারবেন এমপিও শিক্ষকরা। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মতোই বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরাও (এমপিও) ৫ শতাংশ বিশেষ প্রণোদনাসহ জুলাই মাসের বেতন-ভাতা পাচ্ছেন।