ঢাকা ১০:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীপুরে ঈদ পুনর্মিলনী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ঢাকার বুকে মাগুরা জেলার প্রতিনিধিত্বকারী এক গর্ব ও অহংকারের নাম মাগুরা লায়ন্স ক্রিকেট ক্লাব শ্রীপুরে সবুজ আন্দোলনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বিআরটিসির বাসেও চলছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সৌদির সঙ্গে কাল বাংলাদেশেও হতে পারে ঈদ শ্রীপুরে দেশ ও প্রবাসী সমন্বয় কল্যাণ তহবিলের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানাল ফায়ার সার্ভিস চৌদ্দগ্রামে আলকরা প্রবাসী কল্যাণ’র উদ্যাগে ইমাম খতিবদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ফ্রিতে সিম কিনে বিপাকে অর্ধশত পরিবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন ছাত্র উপদেষ্টার দায়িত্ব হস্তান্তর
ব্রেকিং নিউজ ::

 ৭কলেজের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু: ২১ মার্চ ২০২৪,আবেদন শেষ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪ * এ বছর জনপ্রতি ফিতরার হার সর্বনিন্ম ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৯৭০ টাকা *

ভোলায় তরমুজের বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি | বাংলাদেশের বার্তা 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৩৬:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৩৬০৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মোঃআল-আমিন-ভোলা জেলা প্রতিনিধি। 

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার ভোলায় জেলায় আগাম তরমুজের বাম্পার ফলন হয়েছে। আর তরমুজের চাহিদা বেশি থাকায় মৌসুমের শুরুতেই ক্ষেত থেকে তরমুজ কিনে নিচ্ছেন বেপারীরা। একইসঙ্গে বাম্পার ফলন ও দাম বেশি পাওয়ায় তরমুজকে ঘিরে নতুন স্বপ্নে বিভোর চাষি ও বেপারীরা। চাহিদা বেশি থাকায় ক্ষেত থেকেই তরমুজ কিনছেন বেপারীরা।

ভোলার বিভিন্ন এলাকার ক্ষেতগুলো এখন তরমুজে সয়লাব। দ্রুত বাজার ধরতে চলছে দিনরাতের পরিচর্যা।আবহাওয়ার অনুকূল পরিবেশ কে কাজে লাগিয়ে অধিক মুনাফার আশা করছেন চাষিরা।

এদিকে প্রকৃতিতে গরম শুরু হওয়ায় রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বড় বড় শহরে তরমুজের চাহিদা বেড়েছে। এতে বাজার ধরতে ক্ষেত থেকেই তরমুজ কিনে নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

চাষিরা জানান, ঢাকা থেকে আসা বেপারীরা ক্ষেত থেকে তরমুজ কেটে ট্রাকে করে সরাসরি মোকামে নিয়ে যাচ্ছেন। প্রতি বছর শীতের শেষে উপকূলে ঝড়-বাদল আঘাত আনলে তরমুজের আগাম চাষের ব্যাপক ক্ষতি হয়। তবে এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় তরমুজের উৎপাদন বেশ ভালো ফলন হয়েছে।

জেলার নজরুল নগর ইউনিয়নের মাঝের চরের কৃষক মোশারেফ হোসেন এক একর জমিতে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা খরচে করে আগাম তরমুজ চাষ করে বাম্পার ফলন পেয়েছেন। ইতোমধ্যে বিক্রি করেছেন ৪ লাখ টাকার তরমুজ। গত বছরের তুলনায় এবার তরমুজ আবাদে একর প্রতি ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা খরচ বাড়লেও বিক্রিতে আগের তুলনায় বেশি লাভ হয়েছে বলে জানান তিনি।

মাঝের চরের কৃষক মো. লাভলু জানান, ১০ কেজির বেশি ওজনের প্রতি ১০০ পিস তরমুজ মোকামে ৩৫ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর ৮ থেকে ১০ কেজি ওজনের প্রতি ১০০ পিস তরমুজ ২২ হাজার থেকে ২৪ হাজার ও ৮ কেজির কম ওজনের তরমুজ ১২ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

ভোলায় তরমুজের বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি | বাংলাদেশের বার্তা 

আপডেট সময় : ০২:৩৬:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩

মোঃআল-আমিন-ভোলা জেলা প্রতিনিধি। 

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার ভোলায় জেলায় আগাম তরমুজের বাম্পার ফলন হয়েছে। আর তরমুজের চাহিদা বেশি থাকায় মৌসুমের শুরুতেই ক্ষেত থেকে তরমুজ কিনে নিচ্ছেন বেপারীরা। একইসঙ্গে বাম্পার ফলন ও দাম বেশি পাওয়ায় তরমুজকে ঘিরে নতুন স্বপ্নে বিভোর চাষি ও বেপারীরা। চাহিদা বেশি থাকায় ক্ষেত থেকেই তরমুজ কিনছেন বেপারীরা।

ভোলার বিভিন্ন এলাকার ক্ষেতগুলো এখন তরমুজে সয়লাব। দ্রুত বাজার ধরতে চলছে দিনরাতের পরিচর্যা।আবহাওয়ার অনুকূল পরিবেশ কে কাজে লাগিয়ে অধিক মুনাফার আশা করছেন চাষিরা।

এদিকে প্রকৃতিতে গরম শুরু হওয়ায় রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বড় বড় শহরে তরমুজের চাহিদা বেড়েছে। এতে বাজার ধরতে ক্ষেত থেকেই তরমুজ কিনে নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

চাষিরা জানান, ঢাকা থেকে আসা বেপারীরা ক্ষেত থেকে তরমুজ কেটে ট্রাকে করে সরাসরি মোকামে নিয়ে যাচ্ছেন। প্রতি বছর শীতের শেষে উপকূলে ঝড়-বাদল আঘাত আনলে তরমুজের আগাম চাষের ব্যাপক ক্ষতি হয়। তবে এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় তরমুজের উৎপাদন বেশ ভালো ফলন হয়েছে।

জেলার নজরুল নগর ইউনিয়নের মাঝের চরের কৃষক মোশারেফ হোসেন এক একর জমিতে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা খরচে করে আগাম তরমুজ চাষ করে বাম্পার ফলন পেয়েছেন। ইতোমধ্যে বিক্রি করেছেন ৪ লাখ টাকার তরমুজ। গত বছরের তুলনায় এবার তরমুজ আবাদে একর প্রতি ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা খরচ বাড়লেও বিক্রিতে আগের তুলনায় বেশি লাভ হয়েছে বলে জানান তিনি।

মাঝের চরের কৃষক মো. লাভলু জানান, ১০ কেজির বেশি ওজনের প্রতি ১০০ পিস তরমুজ মোকামে ৩৫ হাজার থেকে ৪০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর ৮ থেকে ১০ কেজি ওজনের প্রতি ১০০ পিস তরমুজ ২২ হাজার থেকে ২৪ হাজার ও ৮ কেজির কম ওজনের তরমুজ ১২ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।