ঢাকা ১১:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীপুরে ঈদ পুনর্মিলনী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ঢাকার বুকে মাগুরা জেলার প্রতিনিধিত্বকারী এক গর্ব ও অহংকারের নাম মাগুরা লায়ন্স ক্রিকেট ক্লাব শ্রীপুরে সবুজ আন্দোলনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বিআরটিসির বাসেও চলছে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সৌদির সঙ্গে কাল বাংলাদেশেও হতে পারে ঈদ শ্রীপুরে দেশ ও প্রবাসী সমন্বয় কল্যাণ তহবিলের ঈদ সামগ্রী বিতরণ বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানাল ফায়ার সার্ভিস চৌদ্দগ্রামে আলকরা প্রবাসী কল্যাণ’র উদ্যাগে ইমাম খতিবদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ফ্রিতে সিম কিনে বিপাকে অর্ধশত পরিবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন ছাত্র উপদেষ্টার দায়িত্ব হস্তান্তর
ব্রেকিং নিউজ ::

 ৭কলেজের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু: ২১ মার্চ ২০২৪,আবেদন শেষ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪ * এ বছর জনপ্রতি ফিতরার হার সর্বনিন্ম ১১৫ টাকা এবং সর্বোচ্চ ২৯৭০ টাকা *

রাবিতে বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস পালিত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩৯:৩৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / ৩৫৯৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মনির হোসেন মাহিন।।

‘সাক্ষরতা শিখন ক্ষেত্রের প্রসার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)।

বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের ব্যানারে দিবসটি পালন করা হয়।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী ভবন থেকে এক র‍্যালী বের হয়। প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট সংলগ্ন প্যারিস রোডে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হোন।

এসময় আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসের তাৎপর্য, গুরুত্ব ও প্রাসঙ্গিকতা আলোচনায় বক্তারা বলেন, সকল শিক্ষার প্রাথমিক ভিত্তিই হলো সাক্ষরতা। বর্তমানে করোনা-পরবর্তী পৃথিবীতে দক্ষিণ এশিয়া, সাব-সাহারা অঞ্চল সহ বিশ্বব্যাপী স্কুল থেকে ঝরে পড়া রোধ করা, ডিজিটাল লিটারেসিতে প্রবেশের প্রস্তুতি হিসেবে এবং সচেতন পৃথিবী বিনির্মাণে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসটি গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলে প্রথম সাক্ষরতা দিবস উদযাপন শুরু হয়। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সেই প্রচেষ্টাকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে দিয়েছে। ২০২২ সালের জনশুমারি মতে বর্তমানে দেশে সাক্ষরতার হার ৭৪.৬৬ শতাংশ, যা এযাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আলোচনায় বক্তারা দেশের শিক্ষা, গবেষণা, গুণগত শিক্ষা প্রদান, শিখনের বহুমুখীতা, শিখনের বিস্তারিত নিয়ে আলোচনায় সাক্ষরতার প্রারম্ভিক গুরুত্ব আলোচনা করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটসমূহ এবং শিক্ষা সংক্রান্ত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানসমূহের ভূমিকা উঠে আসে সামগ্রিক আলোচনায়।

অনুষ্ঠানে ইন্সটিটিউটের শিক্ষকবৃন্দ সহ প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

http://এইচ/কে

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

রাবিতে বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস পালিত

আপডেট সময় : ১১:৩৯:৩৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

মনির হোসেন মাহিন।।

‘সাক্ষরতা শিখন ক্ষেত্রের প্রসার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)।

বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের ব্যানারে দিবসটি পালন করা হয়।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী ভবন থেকে এক র‍্যালী বের হয়। প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট সংলগ্ন প্যারিস রোডে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হোন।

এসময় আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসের তাৎপর্য, গুরুত্ব ও প্রাসঙ্গিকতা আলোচনায় বক্তারা বলেন, সকল শিক্ষার প্রাথমিক ভিত্তিই হলো সাক্ষরতা। বর্তমানে করোনা-পরবর্তী পৃথিবীতে দক্ষিণ এশিয়া, সাব-সাহারা অঞ্চল সহ বিশ্বব্যাপী স্কুল থেকে ঝরে পড়া রোধ করা, ডিজিটাল লিটারেসিতে প্রবেশের প্রস্তুতি হিসেবে এবং সচেতন পৃথিবী বিনির্মাণে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবসটি গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাসনামলে প্রথম সাক্ষরতা দিবস উদযাপন শুরু হয়। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সেই প্রচেষ্টাকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে দিয়েছে। ২০২২ সালের জনশুমারি মতে বর্তমানে দেশে সাক্ষরতার হার ৭৪.৬৬ শতাংশ, যা এযাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আলোচনায় বক্তারা দেশের শিক্ষা, গবেষণা, গুণগত শিক্ষা প্রদান, শিখনের বহুমুখীতা, শিখনের বিস্তারিত নিয়ে আলোচনায় সাক্ষরতার প্রারম্ভিক গুরুত্ব আলোচনা করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটসমূহ এবং শিক্ষা সংক্রান্ত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানসমূহের ভূমিকা উঠে আসে সামগ্রিক আলোচনায়।

অনুষ্ঠানে ইন্সটিটিউটের শিক্ষকবৃন্দ সহ প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

http://এইচ/কে