• ক্যাম্পাস

    সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে/ রাবির আন্তঃবিভাগ ফুটবল খেলা সাময়িক বন্ধ 

      প্রতিনিধি ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ৩:৪১:১৩ প্রিন্ট সংস্করণ

    বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক,রাবি॥

    বিভিন্ন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটার পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) চলমান আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। তবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী সপ্তাহে আবার খেলা শুরু হবে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

    বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডীন ও আন্তঃবিভাগ ফুটবল খেলার সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. ইলিয়াস হোসাইনের পরামর্শক্রমে শরীরচর্চা শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান এই খেলা বন্ধের ঘোষণা করেন।

    সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে , আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে আইন বিভাগ ও রসায়ন বিভাগের মধ্যকর আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতায় রেফারির সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে ঝামেলা সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে স্টেডিয়ামের মূল ফটকের সাথে ধাক্কা লেগে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. আসাবুল হক।

    এর আগে, গত রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্স বিভাগ ও আইবিএ অনুষদের মধ্যকর খেলায় টাইব্রেকারের সময় রেফারির সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। তখন ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সের প্রফেসর ড. মোইজুর রহমান মিমাংসার জন্য এগিয়ে গেলে আইবিএ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সিনহা সৌমিক তার কলার ধরে টানাহেঁচড়া করে এবং অন্যান্য শিক্ষার্থীদের মারধর করে। এতে উভয় পক্ষের প্রায় বিশ জন শিক্ষার্থী আহত হয়।

    খেলা বন্ধের সিদ্ধান্ত বিষয়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক ড. মো. ইলিয়াস হোসাইন বলেন, খেলায় সবার মধ্যে অসহিষ্ণুতা বেড়ে গিয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দায়িত্বশীলতার ঘাটতি দেখা দিয়েছে। পর পর দুটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটায় আমরা সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করেছি। চলতি মাসের ১৯ তারিখে সকল অনুষদের ডিনদের সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে একটা মিটিং ডেকেছি। মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী সপ্তাহ পরে আবার যথারীতি খেলা শুরু হবে।

    রাবির শারীরিক শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আছাদুজ্জামান বলেন, পর পর দুটি খেলা নিয়ে ঝামেলা তৈরী হয়েছে। আজ প্রক্টরের মাথা ফাটানোকে কেন্দ্র করে গনিত বিভাগের শিক্ষার্থীরা ভিসির বাসভবন ঘেরাও করে আন্দোলন করে।

    এরপর এমন ঘটনা ঘটলে তার দায়ভার খেলা পরিচালনা কমিটিকে নিতে বলে। সবার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আমরা সাময়িকের জন্য খেলা বন্ধের নোটিশ দিয়েছি। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে আবার খেলা চালু হবে।

    http://এইচ/কে

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ