• আলোকিত মূখ

    সারাদেশের মধ্যে শ্রেষ্ট টেকসই উদ্যোগে পুরস্কৃত হলেন কক্সবাজার নাজিরারটেকের আজিজ উদ্দিন

      প্রতিনিধি ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ , ৮:৩০:০৬ প্রিন্ট সংস্করণ

    পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ)-এর সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি)-এর আয়োজনে ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গত ৮-১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হলো তিন দিনব্যাপী ‘সুপণ্য সমাহার: পরিবেশবান্ধব ক্ষুদ্র উদ্যোগ মেলা ২০২৪’।

    উক্ত মেলায় পিকেএসএফ এর সহযোগী সংস্থা হিসেবে কোস্ট ফাউন্ডেশন এর এসইপি প্রকল্প এবং এসইপি প্রকল্পের উদ্যোক্তা হিসেবে কক্সবাজারের নাজিরারটেক থেকে বালিচর শুঁটকি বাড়ি ও লোকমান শুঁটকি বিতান মেলায় শুঁটকির স্টলের মাধ্যমে অংশগ্রহণ করেন।

    মেলায় প্রকল্প সহায়তাপ্রাপ্ত ৭৭ জন উদ্যোক্তার স্টলের পাশাপাশি ছিল প্রকল্প বাস্তবায়নকারী পিকেএসএফ-এর ৪৭ সহযোগী সংস্থার স্টল। তিন দিনব্যাপী আয়োজিত এ মেলায় প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থী আসে স্টল পরিদর্শন করেন এবং ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের পরিবেশবান্ধব পদ্ধতিতে উৎপাদিত নানা পণ্য ক্রয় করেন। এ তিন দিনে প্রায় এক কোটি টাকার বিক্রয় ও অর্ডার হয়েছে।

    প্রকল্পের আওতাধীন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ক্ষুদ্র উদ্যোগ ও ব্যবসা সম্প্রসারণে উৎসাহিত করার জন্য কয়েকটি ক্যাটিগরিতে পুরস্কার প্রদান করা হয়। শ্রেষ্ঠ টেকসই ক্ষুদ্র উদ্যোগ ধারণা হিসেবে কক্সবাজারের নাজিরারটেকের নিরাপদ শুঁটকি উৎপাদনকারী, তরুণ উদ্যোক্তা মো. আজিজ উদ্দিন, শ্রেষ্ঠ পরিবেশবান্ধব উদ্যোক্তা হিসেবে ঠাকুরগাঁওয়ের কংক্রিট বøক উৎপাদনকারী রবিউল ইসলাম, শ্রেষ্ঠ নারীবান্ধব উদ্যোক্তা রংপুরের হস্তশিল্প পণ্য উৎপাদনকারী জুয়েনা ফেরদৌস মিতুল, শ্রেষ্ঠ কর্মীবান্ধব উদ্যোক্তা নারায়ণগঞ্জের জামদানি উৎপাদনকারী মোঃ রুবেল মিয়া এবং শ্রেষ্ঠ নারী উদ্যোক্তা হিসেবে যশোরের ফুল চাষী সাজেদা খাতুন পুরস্কার লাভ করেন।

    সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের মাননীয় সচিব জনাব শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, পিকেএসএফ চেয়ারম্যান ড. এম. খায়রুল হোসেন বলেন, পিকেএসএফ-এর অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ ফজলুল কাদের, এ.কে.এম জহিরুল হক, এসইপি-প্রকল্প সমন্বয়কারীর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন শ্রেষ্ঠ টেকসই ক্ষুদ্র উদ্যোগ ধারণা হিসেবে পুরস্কার জয়ী কক্সবাজারের মো. আজিজ উদ্দিন।

    শ্রেষ্ঠ টেকসই ক্ষুদ্র উদ্যোগ ধারণা হিসেবে পুরস্কার জয়ী কক্সবাজারের নাজিরারটেকের নিরাপদ শুঁটকি উৎপাদনকারী, তরুণ উদ্যোক্তা মো. আজিজ উদ্দিন বলেন, আমি জানি না, আমার হাতে আসা পুরস্কারটি কত দামি। কিন্তু আমি এইটা জানি, আমি পুরস্কারটি গ্রহণ করেছি অনেকগুলো গুণীজনের সামনে দিয়ে হেঁটে গিয়ে। অনেক উচ্চপদস্থ ব্যক্তি ও গুণীজন আমাকে হাত তালি দিয়ে বাহবা দিয়েছেন। কারণ সারা বাংলাদেশের মধ্যে থেকে শ্রেষ্ঠ টেকসই উদ্যোক্তা হিসেবে আমাকে বেঁচে নেওয়া হয়েছে।

    এই পুরস্কার পাওয়ার বিশেষ অবদান হচ্ছে কোস্ট ফাউন্ডেশন। কোস্ট ফাউন্ডেশন না হলে, আমি নাজিরারটেক থেকে ঢাকা আসা আমার পক্ষে সম্ভব হতোনা। কোস্ট ফাউন্ডেশনের কাছে আজীবন কৃতজ্ঞ ও ঋণী হয়ে থাকবো। ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট(এসইপি), কোস্ট ফাউন্ডেশন এবং পিকেএসএফ কে ।”

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ