ঢাকা ০৭:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজ ::
চৌদ্দগ্রামে গাঁজা-ইয়াবা উদ্ধার, কথিত সাংবাদিকসহ আটক ১৩ মানবপাচার মামলায় : নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩ জুলাই ধার্য করেছে আদালত  কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন মোদির মন্ত্রিসভায়? নীলফামারীর ডিমলায় ৭০০কৃষকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন কালীগঞ্জে গৃহহীন ও ভুমিহীনদের মাঝে জমিসহ ঘড় হস্তান্তর যে কারণে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের লেগ বিফোরে চার রান যোগ হয়নি মিয়ানমারের গুলি’তে খাদ্য সংকটে সেন্টমার্টিনবাসী,নৌ চলাচল বন্ধ  “দৌলতখানে আইস ফ্যাক্টরীর এ্যামোনিয়া গ্যাস বিস্ফোরণ”নিহত ২ আহত ১৮ জন ভারতে লোকসভা নির্বাচনের ফলে কারা এগিয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় মিশন সভা অনুষ্ঠিত 

স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার করায় ব্যবসায়ীকে মারধর এর অভিযোগ উঠেছে মেম্বার এর বিরুদ্ধে

বাংলাদেশের বার্তা
  • আপডেট সময় : ০৭:৪১:৩৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৯৬২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চয়ন কুমার রায়,লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি৷৷ 

লালমনিরহাট-২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী মিছিলে যাওয়ায় এক ব্যবসায়ীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে মেম্বার এর বিরুদ্ধে, গতকাল রোববার রাতে আদিতমারী উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের কালীরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত হলো নেতা আমিনুল হক দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি দূর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি লালমনিরহাট-২ আসনে নৌকার প্রার্থী সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের প্রচারণায় কাজ করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল রাতে কালীরহাট বাজারে এসে ব্যবসায়ী রমনীকান্ত বর্মণকে তার দোকান থেকে তুলে নিয়ে মারধর করেন আওয়ামী লীগ নেতা আামিনুল ও তার লোকজন।

রমনীকান্ত বর্মণ আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি সিরাজুল হকের ‘ঈগল’ প্রতীকের কর্মী হিসেবে কাজ করছেন। তিনি পেশায় ধান ব্যবসায়ী।

রমনীকান্ত বলেন রোববার সন্ধ্যায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণায় প্রায় এক হাজার লোক নিয়ে আমরা একটি মিছিল করি। কয়েক ঘণ্টার মিছিল শেষে আমি দোকানে এসে ব্যবসার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ি। এসময় আমিনুল হক ও ৪-৫ জনকে নিয়ে এসে আমাকে দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে রাস্তার ওপরে মারধর করেন।’

‘স্থানীয় লোকজন এগিয়ে না আসলে আমাকে মারধর করে মেরে ফেলতেন। তিনি আমাকে হুমকি দিয়েছেন, ৭ জানুয়ারির পর আমাকে দেখে নেবেন। আমাকে মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্ন বিপদে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি বলেন তিনি।

জানতে চাইলে মারধর ও হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল হক। রমনীকান্তের সঙ্গে শুধু বাকবতিন্ডা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ বলেন গতকাল রাতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়া গেলে পুলিশ আইনী ব্যবস্থা নেবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার করায় ব্যবসায়ীকে মারধর এর অভিযোগ উঠেছে মেম্বার এর বিরুদ্ধে

আপডেট সময় : ০৭:৪১:৩৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী ২০২৪

চয়ন কুমার রায়,লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি৷৷ 

লালমনিরহাট-২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী মিছিলে যাওয়ায় এক ব্যবসায়ীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে মেম্বার এর বিরুদ্ধে, গতকাল রোববার রাতে আদিতমারী উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের কালীরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত হলো নেতা আমিনুল হক দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি দূর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি লালমনিরহাট-২ আসনে নৌকার প্রার্থী সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের প্রচারণায় কাজ করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল রাতে কালীরহাট বাজারে এসে ব্যবসায়ী রমনীকান্ত বর্মণকে তার দোকান থেকে তুলে নিয়ে মারধর করেন আওয়ামী লীগ নেতা আামিনুল ও তার লোকজন।

রমনীকান্ত বর্মণ আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি সিরাজুল হকের ‘ঈগল’ প্রতীকের কর্মী হিসেবে কাজ করছেন। তিনি পেশায় ধান ব্যবসায়ী।

রমনীকান্ত বলেন রোববার সন্ধ্যায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণায় প্রায় এক হাজার লোক নিয়ে আমরা একটি মিছিল করি। কয়েক ঘণ্টার মিছিল শেষে আমি দোকানে এসে ব্যবসার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ি। এসময় আমিনুল হক ও ৪-৫ জনকে নিয়ে এসে আমাকে দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে বের করে রাস্তার ওপরে মারধর করেন।’

‘স্থানীয় লোকজন এগিয়ে না আসলে আমাকে মারধর করে মেরে ফেলতেন। তিনি আমাকে হুমকি দিয়েছেন, ৭ জানুয়ারির পর আমাকে দেখে নেবেন। আমাকে মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্ন বিপদে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি বলেন তিনি।

জানতে চাইলে মারধর ও হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল হক। রমনীকান্তের সঙ্গে শুধু বাকবতিন্ডা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ বলেন গতকাল রাতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পাওয়া গেলে পুলিশ আইনী ব্যবস্থা নেবে।