• অভিযান

    হাতীবান্ধায় এমপি’র এপিএস’র অবৈধ স্থাপনা আলোচিত বৈরালী হোটেল উচ্ছেদ 

      প্রতিনিধি ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩ , ৯:১০:৩০ প্রিন্ট সংস্করণ

    চয়ন কুমার রায়,লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি।

    লালমনিরহাটে হাতীবান্ধা-পাটগ্রাম আসনের সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের ব্যক্তিগত সহকারী (এপিএস) ও গড্ডিমারী ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামলের মালিকানাধীন ব্যাপক আলোচিত বৈরালী হোটেলসহ ৪৭ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ উচ্ছেদ করা হয়েছে।

    বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) সকালে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছিল এসব অবৈধ স্থাপনা।

    দীর্ঘদিন ধরে এসব স্থাপনা উচ্ছেদের আইনি নোটিশ দেয়া হলেও তা না সরানোয় আদালতের নির্শেদে তিনজন ম্যাজিস্ট্রেট সহ শতাধিক পুলিশ প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তার উপস্থিতিতে ওই সব স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

    জানা গেছে, দেশের সর্ববৃত্তর তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা জোরপূর্বক দখল করে লালমনিরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের ব্যাক্তিগত সহকারী ও গড্ডিমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবু বক্কর ছিদ্দিক শ্যামল এর মালিকানাধীন বৈরালী হোটেল অবৈধ ভাবে গড়ে তোলে।

    দীর্ঘদিন ধরে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আইনি নোটিশ দেওয়া হলেও তা না সরানোয় আদালতের নির্দেশে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা ও তিনজন ম্যাজিস্ট্রেট সহ শতাধিক পুলিশ প্রশাসন আনসার সদস্যদের সাথে নিয়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

    পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা আসফাউদদৌলা বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা দখল পূর্বক ক্ষমতার অপব্যবহার করে ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামলসহ অন্যান্যরা অবৈধ ভাবে ৪৭টি স্থাপনা গড়ে তুলেছিল। এইসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আজ অভিযান পরিচালনা করা হল।

    http://এইচ/কে

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ