• সারাদেশ

    ৪৬হাজার ইয়াবাসহ টেকনাফের বশির গ্রেফতার

      প্রতিনিধি ২৮ অক্টোবর ২০২২ , ৮:৫৭:৩৬ প্রিন্ট সংস্করণ

    আজিজ উদ্দিন।।

    র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অবগত হয়ে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী একটি গাড়ি যোগে মাদকদ্রব্য বহন করে টেকনাফ পৌরসভা হতে কক্সবাজার দিকে আসছিল। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর সিপিসি-২ হোয়াইকং ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল অভিযান পরিচালনা করতে মাঠে নামে।

    ২৮অক্টোবর দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন হ্নীলা ইউপিস্থ বাজার ষ্টেশনের বেবি মার্কেট সংলগ্ন কালবার্টের ২০ গজ উত্তরে কক্সবাজার-টেকনাফ পশ্চিম পার্শ্বস্থ মহাসড়কের নিকটে অস্থায়ী চেকপোষ্ট স্থাপন করে তল্লাশী অভিযান শুরু করে।

    তল্লাশীর একপর্যায়ে বর্ণিত স্থানে উক্ত গাড়িটি পৌঁছা মাত্রই র‌্যাবের চেকপোস্ট বুঝতে পেরে ৩ জন ব্যক্তি তাৎক্ষণিক তাদের গাড়ি থামিয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড জাহালিয়া পাড়া বাসিন্দা কালু মিয়ার পুত্র বশিরকে (৩৮) আটক করে।
    বশিরকে আটক করার সময় ২জন ব্যক্তি পালিয়ে যায়। তারা হলেন, টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের আবদুল মোতালেবের পুত্র তোফায়েল আহমদ(৩৭) ও একই ইউনিয়নের ফজর আলীর পুত্র আবুল হোসেন প্রকাশ আবুইল্লা(৪৫)।

    বশিরের স্বীকারউক্তি মতে, উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে তাদের ব্যবহৃত গাড়িটি তল্লাশী করে ধৃত ব্যক্তির দেখানো ও নিজ হাতে বাহির করে দেয়া মতে গাড়ির চালকের সীটের নিচে বিশেষ কায়দায় রক্ষিত অবস্থা হতে সর্বমোট ৪৬ হাজার পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

    র‌্যাব-১৫ এর সিও খায়রুল হক জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত ব্যক্তি উপরোক্ত নাম ঠিকানা প্রকাশ করে এবং তারা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা ট্যাবলেটসমূহ সীমান্তবর্তী এলাকা হতে ক্রয় করে বেশি দামে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে জব্দকৃত গাড়ি যোগে পরিবহন করে আসছিল মর্মে জানায়।

    তিনি আরো জানান, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি নিয়মিত মামলা রুজুর জন্য কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে।

    http://এস-এএইচ

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ