ঢাকা ০২:৫০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করেছে ইসি চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৯ নম্বর ও মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে যেসব জেলায় শাহজালাল বিমানবন্দরে ৫ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পর্যায় শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক সামছুদ্দিন আহমেদ ইরান রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে শোক বই “জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের” পক্ষে শোক প্রকাশ শ্রীপুরে ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে শিক্ষকের চিঠি প্রতিবাদ করায় পিতাকে কুপিয়ে জখম হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট নিহত ‘জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের”শোক কীভাবে বিধ্বস্ত হলো ইরানি প্রেসিডেন্ট রাইসির হেলিকপ্টার? হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত ইরানের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‌’মারা গেছেন’
সংবাদ শিরোনাম ::
১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করেছে ইসি চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৯ নম্বর ও মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে যেসব জেলায় শাহজালাল বিমানবন্দরে ৫ কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পর্যায় শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক সামছুদ্দিন আহমেদ ইরান রাষ্ট্রদূতের বাসভবনে শোক বই “জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের” পক্ষে শোক প্রকাশ শ্রীপুরে ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে শিক্ষকের চিঠি প্রতিবাদ করায় পিতাকে কুপিয়ে জখম হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট নিহত ‘জাকের পার্টি চেয়ারম্যানের”শোক কীভাবে বিধ্বস্ত হলো ইরানি প্রেসিডেন্ট রাইসির হেলিকপ্টার? হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত ইরানের প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‌’মারা গেছেন’

আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৩০:১২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩
  • / ৩৬০৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফারজানা রহমান সম্পা,কুবি প্রতিনিধি। 

ডিজিটাল প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন…..এই প্রতিপাদ্য নিয়ে অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশে ও পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস।আন্তর্জাতিক নারী দিবস,পূর্বনাম আন্তর্জাতিক কর্মজীবী নারী দিবস।প্রতি বছর ৮ মার্চ তারিখে পালিত হয়।বিশ্বের এক এক প্রান্তে নারী দিবস উদযাপনের প্রধান লক্ষ্য এক এক প্রকার হয়।নানা রকম আয়োজন,অনুষ্ঠান, শোভাযাত্রার মাধ্যমে এ দিনটি উদযাপন করা হয়।

এই দিবসটি উদযাপনের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ইতিহাস।১৯৭১ সালে স্বাধীনতা লাভের পূর্ব থেকেই এই দিবসটি পালিত হয়।১৯৭৫ সালের ৮ মার্চকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। দিবসটি পালনের জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রকে আহ্বান জানায় জাতিসংঘ। এরপর থেকে সারা পৃথিবী জুড়েই পালিত হচ্ছে দিনটি নারীর সমঅধিকার আদায়ের প্রত্যয় নিয়ে।বিশ্বের অনেক দেশে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে সরকারি  ছুটির দিন হিসেবে পালিত হয়।

বিশ্বের প্রতি প্রান্তে নারীদিবস উদযাপনের প্রধান লক্ষ্য নারীর প্রতি সাধারণ সম্মান, শ্রদ্ধা ও সংহতি জ্ঞাপন, নারীর আর্থিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অবমাননা প্রতিহত করা এবং নারীর বিরুদ্ধে নানামুখী আক্রমণ, সন্ত্রাস ও নির্যাতনের অবসান ঘটিয়ে নারীর মানবিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করা।

কথায় বলে-আমরা নারী, আমরাই পারি।তবে বর্তমান সমাজ এটা মানতে রাজি নয়।নারী মানে ঘরে থাকবে,রান্না করবে, বাচ্চা সামলাবে এটাই তাদের ধারনা।পুরুষের মতো বাহিরে গিয়ে কাজ করবে কেন।তবে এখন শুধু ঘর সামলানো নয়,নারীরা অবদান রাখছে সব ক্ষেত্রে।

স্বকর্মসংস্থান থেকে শুরু করে পোশাক শিল্প,সেবা, সরকারি চাকরি, দেশ পরিচালনা, সবকিছুতে রয়েছে নারীদের বিচরণ।সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের ২০২০ সালের গবেষণায় বলা হয়, মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) নারীর অবদান প্রায় ২০ শতাংশ।

ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী মারিয়া বিনতে সেলিম বলেন – একজন তরুণী থেকে মা,কিংবা সাধারণ এক মহিলা থেকে পেশাগত জীবনে অসাধারণ হয়ে ওঠা প্রতিটি নারীর জীবনে কিছু না কিছু লড়াই থাকে আর এই লড়াইকে কুর্নিশ জানায় নারী দিবস।
ডিজিটাল বিশ্ব হোক সবার,কোনো জেন্ডার বৈষম্য থাকবে না এটাই প্রত্যাশা।

ডিজিটাল প্রযুক্তির এ যুগে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের দক্ষতা বাড়ছে। শিক্ষা,প্রযুক্তি, সৃজনশীলতা এখন সবকিছুতেই নারীর অবদান অনস্বীকার্য। যেটা অনেক আগে থেকেই হয়ে এসেছে। তাই কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন-বিশ্বের যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর,অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।

নারীশক্তির বাস্তবায়ন বা  নারীর ক্ষমতায়নের মানে হলো, সমাজের প্রতিটি স্তরে এমন একটি সুস্থ পরিবেশ তৈরি করা যেখানে নারী স্বাধীন ভাবে বিচরণ করবে এবং যোগ্য মর্যাদার অধিকারিনী হয়ে উঠবে,নিজের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করবে বস্তুগত, মানবিক ও জ্ঞান সম্পদের উপর।সেদিনই নারীজাতি পাবে পূর্ণ মর্যাদা ।

নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নিলুফা ইয়াসমিন বলেন-নারী তার দক্ষতা ও কৃতিত্বের প্রমানে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে।কিন্তু তবুও বলতে হবে নারী নির্যাতন,ধর্ষন,পুরুতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থা ইত্যাদি কারনে নারীর ক্ষমতায়ন পুরোপুরি সম্ভব হচ্ছে না।

পুরুষ শাসিত সমাজ বলে নারীরা অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার সুযোগ থেকে।তাই বেগম রোকেয়ার সেই উক্তি বলতেই হয়-শিক্ষা লাভ করা সব নর-নারীর অবশ্য কর্তব্য।’ কিন্তু আমাদের সমাজ সর্বদা তাহা অমান্য করেছে। অবমাননা ও অত্যাচারে অভ্যস্ত নারী প্রতিনিয়ত পুরুষের হাতে লাঞ্ছিত হলেও  এ কথা অনস্বীকার্য যে   নারী শক্তি ছাড়া  পৃথিবীতে কোনো কিছুই সম্ভব হয়ে ওঠেনি এবং ভবিষ্যতে ও  উঠবে না । যুগে যুগে ইতিহাস সমৃদ্ধির তালিকায় নারীরাই শীর্ষস্থান গ্রহণ করে এসেছে।নারীদের শক্তি বিহীন পৃথিবী সামনের দিকে অগ্রসর হতে পারে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজ

আপডেট সময় : ০৬:৩০:১২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

ফারজানা রহমান সম্পা,কুবি প্রতিনিধি। 

ডিজিটাল প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন…..এই প্রতিপাদ্য নিয়ে অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশে ও পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস।আন্তর্জাতিক নারী দিবস,পূর্বনাম আন্তর্জাতিক কর্মজীবী নারী দিবস।প্রতি বছর ৮ মার্চ তারিখে পালিত হয়।বিশ্বের এক এক প্রান্তে নারী দিবস উদযাপনের প্রধান লক্ষ্য এক এক প্রকার হয়।নানা রকম আয়োজন,অনুষ্ঠান, শোভাযাত্রার মাধ্যমে এ দিনটি উদযাপন করা হয়।

এই দিবসটি উদযাপনের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ইতিহাস।১৯৭১ সালে স্বাধীনতা লাভের পূর্ব থেকেই এই দিবসটি পালিত হয়।১৯৭৫ সালের ৮ মার্চকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রদান করা হয়। দিবসটি পালনের জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রকে আহ্বান জানায় জাতিসংঘ। এরপর থেকে সারা পৃথিবী জুড়েই পালিত হচ্ছে দিনটি নারীর সমঅধিকার আদায়ের প্রত্যয় নিয়ে।বিশ্বের অনেক দেশে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে সরকারি  ছুটির দিন হিসেবে পালিত হয়।

বিশ্বের প্রতি প্রান্তে নারীদিবস উদযাপনের প্রধান লক্ষ্য নারীর প্রতি সাধারণ সম্মান, শ্রদ্ধা ও সংহতি জ্ঞাপন, নারীর আর্থিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অবমাননা প্রতিহত করা এবং নারীর বিরুদ্ধে নানামুখী আক্রমণ, সন্ত্রাস ও নির্যাতনের অবসান ঘটিয়ে নারীর মানবিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করা।

কথায় বলে-আমরা নারী, আমরাই পারি।তবে বর্তমান সমাজ এটা মানতে রাজি নয়।নারী মানে ঘরে থাকবে,রান্না করবে, বাচ্চা সামলাবে এটাই তাদের ধারনা।পুরুষের মতো বাহিরে গিয়ে কাজ করবে কেন।তবে এখন শুধু ঘর সামলানো নয়,নারীরা অবদান রাখছে সব ক্ষেত্রে।

স্বকর্মসংস্থান থেকে শুরু করে পোশাক শিল্প,সেবা, সরকারি চাকরি, দেশ পরিচালনা, সবকিছুতে রয়েছে নারীদের বিচরণ।সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের ২০২০ সালের গবেষণায় বলা হয়, মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) নারীর অবদান প্রায় ২০ শতাংশ।

ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী মারিয়া বিনতে সেলিম বলেন – একজন তরুণী থেকে মা,কিংবা সাধারণ এক মহিলা থেকে পেশাগত জীবনে অসাধারণ হয়ে ওঠা প্রতিটি নারীর জীবনে কিছু না কিছু লড়াই থাকে আর এই লড়াইকে কুর্নিশ জানায় নারী দিবস।
ডিজিটাল বিশ্ব হোক সবার,কোনো জেন্ডার বৈষম্য থাকবে না এটাই প্রত্যাশা।

ডিজিটাল প্রযুক্তির এ যুগে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের দক্ষতা বাড়ছে। শিক্ষা,প্রযুক্তি, সৃজনশীলতা এখন সবকিছুতেই নারীর অবদান অনস্বীকার্য। যেটা অনেক আগে থেকেই হয়ে এসেছে। তাই কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন-বিশ্বের যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর,অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।

নারীশক্তির বাস্তবায়ন বা  নারীর ক্ষমতায়নের মানে হলো, সমাজের প্রতিটি স্তরে এমন একটি সুস্থ পরিবেশ তৈরি করা যেখানে নারী স্বাধীন ভাবে বিচরণ করবে এবং যোগ্য মর্যাদার অধিকারিনী হয়ে উঠবে,নিজের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করবে বস্তুগত, মানবিক ও জ্ঞান সম্পদের উপর।সেদিনই নারীজাতি পাবে পূর্ণ মর্যাদা ।

নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নিলুফা ইয়াসমিন বলেন-নারী তার দক্ষতা ও কৃতিত্বের প্রমানে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে।কিন্তু তবুও বলতে হবে নারী নির্যাতন,ধর্ষন,পুরুতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থা ইত্যাদি কারনে নারীর ক্ষমতায়ন পুরোপুরি সম্ভব হচ্ছে না।

পুরুষ শাসিত সমাজ বলে নারীরা অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার সুযোগ থেকে।তাই বেগম রোকেয়ার সেই উক্তি বলতেই হয়-শিক্ষা লাভ করা সব নর-নারীর অবশ্য কর্তব্য।’ কিন্তু আমাদের সমাজ সর্বদা তাহা অমান্য করেছে। অবমাননা ও অত্যাচারে অভ্যস্ত নারী প্রতিনিয়ত পুরুষের হাতে লাঞ্ছিত হলেও  এ কথা অনস্বীকার্য যে   নারী শক্তি ছাড়া  পৃথিবীতে কোনো কিছুই সম্ভব হয়ে ওঠেনি এবং ভবিষ্যতে ও  উঠবে না । যুগে যুগে ইতিহাস সমৃদ্ধির তালিকায় নারীরাই শীর্ষস্থান গ্রহণ করে এসেছে।নারীদের শক্তি বিহীন পৃথিবী সামনের দিকে অগ্রসর হতে পারে না।