• আঞ্চলিক গ্রাম-গঞ্জ

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত

      প্রতিনিধি ৩ আগস্ট ২০২৩ , ৯:১৩:০২ প্রিন্ট সংস্করণ

    দেলোয়ার হোসাইন মাহদী। (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল পাকশিমুল ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাকশিমুল গ্রামের জামে মসজিদের সামনে এ পুলিশিং সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন।

    সভায় সরাইল থানার পুলিশ অফিসার ইন চার্জ মোহাম্মদ ইমরানুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেকেন্ড অফিসার মোঃ জয়নাল আবদিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পাকশিমুল ইউপি চেয়ারম্যান কাউসার হোসেন। পাকশিমুল ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম।

    অরুওয়াইল ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। অরুওয়াইল ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজি আবু তালেব। পাকশিমুল ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ। অরুওয়াইল ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম। অরুওয়াইল ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ কাপতান সহ পাকশিমুল ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তি, গণমাধ্যম কর্মী ও বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

    সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ শাখাওয়াত হোসেন বলেন, যার বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলা দেওয়া হবে। এসব ক্ষেত্রে আমরা কাউকে খাতির করতে চাই না। অস্ত্র থাকার কথা না, অস্ত্র থাকবে না। মারামারি যদি কেউ করে, কেউ যদি টেটা, বল্লম, যেটাই হোক ছবিতে আসবে, ওই ছবি দেখে একটি একটি করে চিহ্নিত করা হবে, সর্বশেষ ওই বল্লম উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত অস্ত্র অভিযান চলবে, মামলা হবে, গ্রেফতার হবে। দেশীয় অস্ত্র যার দখলে থাকবে ও যার নলেজে থাকবে উভয়ের বিরুদ্ধে মামলা হবে। এক্ষেত্রে আমরা কোন ছাড় দিব না।

    এ সময় তিনি আরো বলেন, জুয়ার বিরুদ্ধে আমাদের কঠিন অভিযান চলবে, কারণ জুয়া খেলা হচ্ছে অপরাধের উৎস। বউকে পিটাবে, বাচ্চাকে পিটাবে, সংসারে অশান্তি সৃষ্টি হবে, তালাক হবে। আবার সে টাকা ব্যবস্থা করার জন্য ইয়াবা ব্যবসা করবে।

    সকল ধরনের চুরি, ছিনতাই, ঢাকাতি এক সময় সে করে থাকে। তাই একসময় এর থেকে বিভিন্ন অপরাধের সৃষ্টি হয়। সুতরাং জুয়ার প্রতি আমাদের একটা বিশেষ নজর থাকবে, এটা যেন আমরা নির্মূল করতে পারি।

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ