• নির্বাচন

    জয়পুরহাট-২ আসনে চতুর্থ বারের মতো নৌকার মাঝি হুইপ- স্বপন

      প্রতিনিধি ২৮ নভেম্বর ২০২৩ , ১০:২৭:৪২ প্রিন্ট সংস্করণ

    ক্ষেতলাল (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি:

    দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে থেকে চূড়ান্ত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করেছে ক্ষমতাসীন দলটি। এতে জয়পুরহাট-২ সংসদীয় আসনে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

    গত রোববার (২৬ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে অবস্থিত দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ সময় ৩০০ আসনের মধ্যে ২৯৮টির প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন তিনি।

    কালাই-ক্ষেতলাল-আক্কেলপুর উপজেলা নিয়ে জয়পুরহাট-২ আসন গঠিত। এই আসনে বর্তমানে সংসদ সদস্য রয়েছেন আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি। তিনিও আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে ৫ম বারের মতো সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। ১৯৮১ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্ত হন এই নেতা। ১৯৯১ থেকে ৯২ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

    ১৯৯২-৯৪ সালে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৪-৯৮ সালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০০২ সালে তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে চলে আসেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদকের পদে। সেখানে টানা সাত বছর দায়িত্ব পালন করে ২০০৯ সালে প্রথমবারের মতো সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ পান। এরপর থেকে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের এই নেতা বর্তমান সময় পর্যন্ত টানা পাঁচবার একই পদে থেকে রাজনীতি করছেন। এই পদে থেকে তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে সক্রিয় করতে রাজশাহী, খুলনা, রংপুর বিভাগের দায়িত্ব পান। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বে রয়েছেন।

    আওয়ামী লীগের এই নেতা জয়পুরহাট-২ আসনে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে দাঁড়ান। সেই সময় তিনি ৩ হাজার ১৫৯ ভোটের ব্যবধানের বিএনপির প্রার্থী গোলাম মোস্তফা’র কাছে হেরে যান। ২০১৪ সালের নির্বাচনে তিনি আবারও আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হন। সেসময় বিরোধী দলগুলো নির্বাচন বর্জন করে তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিলে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। এরপর তিনি ২০১৮ সালে পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হন।

    সেসময় তিনি বিএনপির প্রার্থী খলিলুর রহমানকে ২ লাখ ২ হাজার ৬১০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে নির্বাচিত হন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই নেতা জাতীয় সংসদের হুইপের দায়িত্ব পান। এবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি দলীয় নৌকা প্রতীকে জয়পুরহাট-২ আসন থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

    হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপির ব্যক্তিগত সহকারী এবিএম ইমরুল হাসান সৈকত বলেন, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা জয়পুরহাট- ২ আসনে টানা চতুর্থবারের মতো আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি মহোদয়কে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমরা আগামী ৩০ তারিখ বৃহস্পতিবার জয়পুরহাট-২ সংসদীয় আসনের কালাই, ক্ষেতলাল ও আক্কেলপুর তিন উপজেলায় নির্বাচন অফিসে দলীয় মনোনয়ন জমা দিবো। আমরা বিশ্বাস করি জনগণ আগামী ৭ জানুয়ারি সারাদিন নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারো আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনকে বিজয়ী করবেন ইনশাআল্লাহ।

    প্রসঙ্গত নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ হবে ১৮ ডিসেম্বর এবং নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চলবে ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ৭ জানুয়ারি ব্যালট পেপারে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ