ঢাকা ০৬:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজ ::
চৌদ্দগ্রামে গাঁজা-ইয়াবা উদ্ধার, কথিত সাংবাদিকসহ আটক ১৩ মানবপাচার মামলায় : নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩ জুলাই ধার্য করেছে আদালত  কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন মোদির মন্ত্রিসভায়? নীলফামারীর ডিমলায় ৭০০কৃষকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন কালীগঞ্জে গৃহহীন ও ভুমিহীনদের মাঝে জমিসহ ঘড় হস্তান্তর যে কারণে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের লেগ বিফোরে চার রান যোগ হয়নি মিয়ানমারের গুলি’তে খাদ্য সংকটে সেন্টমার্টিনবাসী,নৌ চলাচল বন্ধ  “দৌলতখানে আইস ফ্যাক্টরীর এ্যামোনিয়া গ্যাস বিস্ফোরণ”নিহত ২ আহত ১৮ জন ভারতে লোকসভা নির্বাচনের ফলে কারা এগিয়ে সিরাজগঞ্জ জেলা জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় মিশন সভা অনুষ্ঠিত 

গোয়ালন্দে প্রতিবন্ধিকে গণধর্ষণ গ্রেফতার ৩

বাংলাদেশের বার্তা
  • আপডেট সময় : ০২:০৪:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগাস্ট ২০২২
  • / ৯৬২৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলাদেশের বার্তা অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

(রাজু আহমেদ) স্টাফ রিপোর্টার॥

 

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে এক প্রতিবন্ধী তরুনীকে (১৯) সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ অভিযুক্ত ৩ যুবককে গ্রেফতার করে।

এখনো পলাতক রয়েছে আরো ৩ জন গ্রেফতারকৃতরা হলো গোয়ালন্দ পৌরসভার আড়ৎপট্টি এলাকার লালমিয়া বেপারীর ছেলে মোঃ সজল বেপারী ওরফে শরিফ বেপারী (২৮), ঘোষ পট্টি এলাকার আলতাফ ডাক্টারের ছেলে মিঠু (৩৮) এবং উত্তর উজানচর নতুন পাড়ার বাসিন্দা মৃত তোতা শেখের ছেলে মোঃ আলামিন শেখ (২৮)।
এছাড়া এ ঘটনায় পলাতক রয়েছে ১ জন এজাহারভুক্ত ও ২ জন অজ্ঞাতনামাসহ মোট ৩ জন আসামী।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে , তরুনীর বাবা একজন দিন মজুর। গত শনিবার (২০ আগষ্ট) দিবাগত রাত ১ টার দিকে তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি মেয়ে ঘরে নেই। কাছাকাছি খোঁজাখুজির পর রাত ২ টার দিকে তারা তরুণীকে বাড়ী থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ বাজার হতে দৌলতদিয়া ঘাট গামী রেল ব্রীজের ঢালে খুঁজে পান।

এ সময় তাদের উপস্থিতি দেখে সেখান থেকে কয়েকজন লোক দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে স্বজনরা তরুণীকে সেখান থেকে উলঙ্গ অবস্থায় উদ্ধার করে এবং হাতেনাতে আটক করে ধর্ষক শরীফ বেপারী ও মিঠুকে। তারা ঘটনার জন্য তরুণীর বাবার কাছে ক্ষমা চায়। অসহায় বাবা লোক লজ্জার ভয়ে তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে মেয়েকে নিয়ে বাড়ীতে চলে আসেন। পরদিন রবিবার (২১ আগষ্ট) তরুনীকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঘটনা শুনে ভুক্তভোগী তরুণীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু দরিদ্র বাবা টাকার অভাবে মেয়েকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারেন নাই।

পরবর্তীতে আত্মীয়-স্বজনদের পরামর্শে দুইদিন পর মঙ্গলবার (২৩ আগষ্ট) বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেনকে জানান তারা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাৎক্ষণিক বিষয়টি গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসিকে অবগত করেন।ওসি ইউএনও’র কার্যালয়ে গিয়ে ঘটনা শোনার পর তরুণীর বাবাকে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন। এ সময় ভুক্তভোগী বাবা থানায় গিয়ে ওইদিনই ৪ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরো ২ জনসহ মোট ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয় গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, মামলা দায়েরের পর মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত ৩ জন আসামীকে গ্রেফতার করি।

অপর আসামীদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বুধবার গ্রেফতারকৃত আসামিদেরকে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এইচ/কে

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

গোয়ালন্দে প্রতিবন্ধিকে গণধর্ষণ গ্রেফতার ৩

আপডেট সময় : ০২:০৪:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগাস্ট ২০২২

(রাজু আহমেদ) স্টাফ রিপোর্টার॥

 

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে এক প্রতিবন্ধী তরুনীকে (১৯) সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ অভিযুক্ত ৩ যুবককে গ্রেফতার করে।

এখনো পলাতক রয়েছে আরো ৩ জন গ্রেফতারকৃতরা হলো গোয়ালন্দ পৌরসভার আড়ৎপট্টি এলাকার লালমিয়া বেপারীর ছেলে মোঃ সজল বেপারী ওরফে শরিফ বেপারী (২৮), ঘোষ পট্টি এলাকার আলতাফ ডাক্টারের ছেলে মিঠু (৩৮) এবং উত্তর উজানচর নতুন পাড়ার বাসিন্দা মৃত তোতা শেখের ছেলে মোঃ আলামিন শেখ (২৮)।
এছাড়া এ ঘটনায় পলাতক রয়েছে ১ জন এজাহারভুক্ত ও ২ জন অজ্ঞাতনামাসহ মোট ৩ জন আসামী।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে , তরুনীর বাবা একজন দিন মজুর। গত শনিবার (২০ আগষ্ট) দিবাগত রাত ১ টার দিকে তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি মেয়ে ঘরে নেই। কাছাকাছি খোঁজাখুজির পর রাত ২ টার দিকে তারা তরুণীকে বাড়ী থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ বাজার হতে দৌলতদিয়া ঘাট গামী রেল ব্রীজের ঢালে খুঁজে পান।

এ সময় তাদের উপস্থিতি দেখে সেখান থেকে কয়েকজন লোক দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে স্বজনরা তরুণীকে সেখান থেকে উলঙ্গ অবস্থায় উদ্ধার করে এবং হাতেনাতে আটক করে ধর্ষক শরীফ বেপারী ও মিঠুকে। তারা ঘটনার জন্য তরুণীর বাবার কাছে ক্ষমা চায়। অসহায় বাবা লোক লজ্জার ভয়ে তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে মেয়েকে নিয়ে বাড়ীতে চলে আসেন। পরদিন রবিবার (২১ আগষ্ট) তরুনীকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঘটনা শুনে ভুক্তভোগী তরুণীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু দরিদ্র বাবা টাকার অভাবে মেয়েকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারেন নাই।

পরবর্তীতে আত্মীয়-স্বজনদের পরামর্শে দুইদিন পর মঙ্গলবার (২৩ আগষ্ট) বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেনকে জানান তারা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাৎক্ষণিক বিষয়টি গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসিকে অবগত করেন।ওসি ইউএনও’র কার্যালয়ে গিয়ে ঘটনা শোনার পর তরুণীর বাবাকে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন। এ সময় ভুক্তভোগী বাবা থানায় গিয়ে ওইদিনই ৪ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরো ২ জনসহ মোট ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয় গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, মামলা দায়েরের পর মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত ৩ জন আসামীকে গ্রেফতার করি।

অপর আসামীদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বুধবার গ্রেফতারকৃত আসামিদেরকে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এইচ/কে