• ক্যাম্পাস

    রাবিতে ভর্তিচ্ছুদের বিনামূল্যে পানি ও স্যালাইন বিতরণ করছে রাবির পিডিএফ 

      প্রতিনিধি ২৭ জুলাই ২০২২ , ১২:৫৮:৪৯ প্রিন্ট সংস্করণ

    মনির হোসেন মাহিন, রাবি;

    রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিবন্ধী পরিক্ষার্থীদের সিটে পৌঁছে দেওয়া, সাধারন পরিক্ষার্থীদের দিকনির্দেশনা সহ পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে বিনামূল্যে পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করছে রাবি ফ্যাজিক্যালি চ্যালেঞ্জড ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (পিডিএফ) এডমিশন হেল্প ক্যাম্প।

    বুধবার (২৭ জুলাই) ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার্থীদের মাঝে চেম্বার অব কমার্স প্রতিষ্ঠানের স্পনসরের মাধ্যমে এমন কর্মকান্ড করতে দেখা যায় তাদেরকে।

    সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কোনো প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী দেখলেই ছুটে যান পিডিএফ ক্লাবের সদস্যরা। শারীরিকভাবে অক্ষম শিক্ষার্থী হলেই নিয়ে যাচ্ছেন পরীক্ষার হলে এবং পরীক্ষা শেষ হলে আবার পরীক্ষার হল থেকে নিয়ে আসছেন। অভিভাবকদের মাজে বিতরণ করছেন বিনামূল্যে পানি ও খাবার স্যালাইন। ক্যাম্পাের সামনে দাড়িয়ে শিক্ষার্থীদের কেন্দ্র সম্পর্কে দিকনির্দেশনাও দিচ্ছেন এ ক্লাবের স্বেচ্ছাসেবীরা।

    দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে শ্রুতি লেখকের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন তারা। পাশাপাশি কেন্দ্রে গিয়ে প্রতিবন্ধীদের শিক্ষার্থীদের খোঁজ খবর রাখছেন তারা। এদিকে এ কাজ গুলোর মধ্যেই তারা সীমাবদ্ধ না ভর্তিচ্ছু প্রতিবন্ধী ও সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে আবাসনের ব্যবস্থাও করছেন এ ক্লাবের সদস্যরা।

    খোঁজ নিয়ে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-উপদেষ্টার মাধ্যমে চেম্বার অব কমার্স পানির বোতল ও স্যালাইন প্রদান করেন। এমন সামগ্রী পেয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে এসব বিতরণ করেন তারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা তারেক নূর, রাজশাহীর চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাসুদুর রহমান, চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক আসাদুজ্জামান রবি, মোস্তাফিজুর রহমান ও সুলতান মাহমুদ সুমন।

    ক্লাবটির সভাপতি জামাল উদ্দিন বলেন, আমরা প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সেবা দেওয়ার জন্য প্রতি বছর ক এক জায়গায় ক্যাম্প করে বসি। এ বছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। আমরা প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী দেখলে তাদের হলের কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া থেকে শুরু করে নিয়ে আসা পর্যন্ত সকল সেবা প্রদান করে থাকি।

    তিনি আরও বলেন, আমাদের এমন কাজের বিষয়ে জানতে পেরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার এবং উপ-উপাচার্য ড. মোঃ সুলতান-উল-ইসলাম পিডিএফ এর হেল্পডেস্ক পরিদর্শন করেন ও পিডিএফ এর নেতৃবৃন্দকে ডেকে সার্বিক খোজঁ খবর নেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তিনি প্রয়োজনীয় সহায়তাও প্রদান করেন।

    আমাদের কার্যক্রম দেখতে আরও এসেছিলেন ছাত্র উপদেষ্টা ড.তারেক নুরসহ চেম্বার অব কমার্সের প্রতিনিধিবৃন্দরা। তাঁরা পিডিএফ হেল্পডেস্ক পরিদর্শন করেন এবং সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

    পিডিএফ এর সাবেক সভাপতি মোজাহিদ বলেন, পিডিএফ একটি মানবিক সংগঠন। শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের দেশের বোঝা না বানিয়ে দক্ষ সুনাগরিক হিসাবে গড়ে তলার এ ক্লাবের মূল উদ্দেশ্য। আমাদের ক্যাম্পে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন চেম্বার অব কমার্স। তাদের উদ্যেগ নিঃসন্দেহ প্রশংসার দাবীদার। আগামীতেও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য হুইল চেয়ার, ক্রাচ, সহ স্কলারশিপ এর মত মানবিক কাজে চেম্বার অব কমার্স ভূমিকা রাখবে বলে রাবি-পিডিএফ প্রত্যাশা করে।

    শিক্ষার্থীদের এমন মহৎকাজে অংশগ্রহণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-উপদেষ্টা তারেক নূর। এমন কাজের প্রশাংসা করে তিনি বলেন, পিডিএফ একটি চমৎকার সংগঠন। সমাজের অবহেলিত পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কাজ করে যাচ্ছে এ সংগঠনটি। তারা ড. ওয়াজেদ মিয়া একাডেমিক ভবনের সামনে ক্যাম্প করেছে শুনে আমি সরাসরি পরিদর্শন করতে চলে আসি।

    ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে পানি বিতরণ করার জন্য আমার কাছে পানির বোতল চায়। আমি তাদেরকে চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির মাধ্যমে ৩ হাজার পানির বোতল তাদের কাছে সরবরাহ করি। যেকোনো সমস্যায় এ সংগঠনটির পাশে থাকার দৃঢ় আশ্বাস প্রদান করেন ছাত্র-উপদেষ্টা।

    আরও খবর

                       

    জনপ্রিয় সংবাদ